1. admin@dainiknabadiganterdak.com : admin :
সোমবার, ০২ অগাস্ট ২০২১, ০৭:২৩ অপরাহ্ন

বীর প্রতীক তারামন বিবি পাঠাগারকে আনসার ক্যাম্প করার প্রতিবাদে মানববন্ধন।

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • সময় : বৃহস্পতিবার, ৩ জুন, ২০২১
  • ১৯০ বার পঠিত
সংবাদটি শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আজ বৃহস্পতিবার (০৩/২১ইং) সকাল ১০:৩০ মিনিটে রাজিবপুর সুপার মার্কেট এর সামনে মানববন্ধন কর্মসূচি করা হয়। বীরপ্রতীক তারামন বিবির নিজ হাতে গড়া সংগঠন ” বীরপ্রতীক তারামন বিবি স্টুডেন্টস ফাউন্ডেশনের ” উদ্যোগে উক্ত মানববন্ধন এর আয়োজন করা হয় । বাংলাদেশের গর্ব বীর প্রতীক তারামন বিবির স্মৃতি রক্ষার্থে প্রতিষ্ঠিত রাজিবপুরে একমাত্র পাঠাগার বীর প্রতীক তারামন বিবি পাঠাগার ও মুক্তিযোদ্ধার চেতনা বিকাশ কেন্দ্রীকে আনসার ক্যাম্প করার প্রতিবাদে এই মানববন্ধন টির আয়োজন করা হয় । ২০০৯ সালে পাঠাগারটি প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর সেখানে বই পড়া এবং সাংস্কৃতিক অঙ্গনের জন্য ব্যবহার করা হচ্ছিলো । কিন্তু কিছুদিন আগে রাজিবপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ নবীরুল ইসলামের দেহরক্ষী আনসার বাহিনীদের থাকার জন্য বীর প্রতীক তারামন বিবি পাঠাগার কে আশ্রয় কেন্দ্র বানিয়েছেন। তারামন বিবির নামে করা পাঠাগার আবার পুনরায় চালুর করার দাবি জানাচ্ছে এলাকার সচেতন মহল সহ বিভিন্ন সংগঠন এবং এলাকার বিশেষ ব্যক্তিবর্গরা ।

 

উক্ত মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন, শেখ মিশু, রোস্তম মাহমুদ,আব্দুর রহমান সাইদুর,বাদল,কাউসার ও বীর প্রতীক তারামন বিবি স্টুডেন্ট ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশন এর সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক সহ আরও অনেকে ।

বক্তরা তাদের বক্তব্যে বলেন, বীর প্রতীক তারামন বিবির সম্মান নষ্ট করেছেন রাজিবপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ নবীরুল ইসলাম, অতিদ্রুত আমাদের পাঠাগার পুনরায় ফিরে দেওয়া হোক। সেই সাথে ভবিষ্যৎ প্রজন্ম কে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিকাশ ঘটাতে পাঠাগার খুব গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। কিন্তু বর্তমানে এ পাঠাগারে বই পড়া হচ্ছে না ।

থাকতে দেওয়া হচ্ছে আনসার বাহিনীদের।

 

রাজিবপুর উপজেলা মুক্তিযুদ্ধ সংসদের সাবেক কমান্ডার, মোঃ আব্দুল হাই সরকার বলেন , বীরপ্রতীক তারামন বিবির নামে রাজিবপুরে একটিই মাত্র প্রতিষ্ঠান সেই প্রতিষ্ঠানে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তার দেহরক্ষীদের শয়নকক্ষ বানিয়ে খুব খারাপ কাজ করেছে ।

 

বীর প্রতীক তারামন বিবি পাঠাগারের প্রতিষ্ঠাতা, বীর মুক্তিযোদ্ধা এবং সাবেক অধ্যাপক সবুজ ফারুকীর কাছে জানতে চাইলে বলেন , শুধুমাত্র মানববন্ধনের মাধ্যমে প্রতিবাদ জানালে সমস্যার সমাধান হবে না । এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সাথে কথা বলে সমন্বয়ে র মাধ্যমে কার্যক্রম করার উপদেশ প্রদান করেন ।

 

বীর প্রতীক তারামন বিবি পাঠাগার ও মুক্তিযোদ্ধার চেতনা বিকাশ কেন্দ্রীকে আনসার ক্যাম্প করার বিষয়ে কথা বলার জন্য রাজিবপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, মোঃ নবীরুল ইসলাম সাথে কয়েকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তাঁর মুঠোফোন বন্ধ পাওয়া যায় ।


সংবাদটি শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা