1. admin@dainiknabadiganterdak.com : admin :
  2. nabadiganterdak@gmail.com : Md Sabbir : Md Sabbir
বুধবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:১৪ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় শিক্ষা সেমিনার জুম প্লাটফর্মের শুভ উদ্ভোধন হরিপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের আয়োজনে প্রধানমন্ত্রীর ৭৫তম জন্মদিন পালন হরিপুরে আন্তর্জাতিক তথ্য অধিকার দিবসে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে রাণীশংকৈলে আনন্দ র‍্যালী ও মিলাদ মাহ্ফিল পীরগঞ্জে প্রধানমন্ত্রীর ৭৫তম জন্মদিন উদযাপন প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে ছাত্রলীগের র‌্যালি,মিলাত ও দোয়া অনুষ্ঠিত মিথ্যা অভিযোগ করায় পাল্টা সংবাদ সম্মেলন – বেলাল উদ্দিন ঠাকুরগাঁওয়ের জঙ্গলে মিলল যুবকের গলাকাটা লাশ প্রধানমন্ত্রীর নিউইয়র্ক সফর নিয়ে কটূক্তি করায় ভুরুঙ্গামারীতে একজনকে থানায় সোপর্দ পঞ্চগড়ে বজ্রপাতে এক যুবকের মুত্যু, আহত ৪

মুমিনদের জন্য শিক্ষণীয় গল্প

🖌️সত্যের লেখক
  • সময় : সোমবার, ৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৬৩ বার পঠিত
সংবাদটি শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সকল প্রশংসা একমাত্র আল্লাহ তা’আলার জন্য।

একটি গরু জঙ্গলে ঘাস খাচ্ছিল।হঠাৎ তাকে একটি বাঘ আক্রমণ করল।

 

গরুটি অনেক্ষন দৌড়ানোর পর উপায় না পেয়ে পুকুরে ঝাপ দিল।মাত্র শুঁকিয়ে যাওয়া পুকুরটিতে কাঁদা ছাড়া কোন পানি ছিল না।

গরুর পেছন পেছন বাঘটিও ঝাপ দিল।বাঘ ও গরু কাঁদায় গলা পর্যন্ত আটকে গেল।

 

বাঘ রেগে মেগে বলে,”কিরে হারামী তুই আর লাফ দেয়ার জায়গা পেলি না? ডাঙায় থাকলে তোকে না হয় একটু কুড়মুড় করে খেতাম।এখনতো দুজনেই মরবো রে…..।

 

গরু হাসতে লাগলো।

বাঘ বললো এতো হাসছিস কেনো তোর মরার আগে বুঝি হাসতে ইচ্ছে করছে?

গরু হেসে বলে না তা নয় কিন্তু তুই আমার কিছুই করতে পারবি না!

 

বাঘ বললো কেনোরে তুই কি আমার সাথে লড়াই করবি? তোর কি আমার মতো শক্তি আছে? আমার মতো কি দৌড়াতে পারিস?আমার মতো কি শক্ত চোয়াল ওয়ালা দাঁত, শক্ত পেশি এবং ধরালো নখ আছে?

 

গরু বললো না নেই  কিন্তু  “তোমার কি মালিক আছে?

 

বাঘ রেগে বলে,বেটা আমি হলাম বনের রাজা আমার আবার মালিক কে।

আমি নিজেইতো বনের মালিক।

 

গরু বলে তুমি এখানেই দূর্বল,একটু পর আমার মালিক আসবে।এসে আমাকে এখান থেকে তুলে নিয়ে যাবে। আর তোমাকে পিটিয়ে মারবে।

বাঘ বড় বড় চোখ করে তাকিয়ে রইল।হায়!হায়! কয়কি?

 

ঠিকই সন্ধ্যা বেলায় গরুটির মালিক এসে বাঘটার মাথায় বাঁশ দিয়ে কয়েকটা বাড়ি দিয়ে মেরে ফেললো এবং গরুটিকে টেনে তুলল। গরু হাসতে হাসতে বাড়ি চলে গেল আর বাঘটি মরে একা একা পড়ে রইল।

 

মূলকথাঃ আমরা যারা মালিকের উপর ভরসা করি আমাদের উপর যত জুলুম, অত্যাচার নির্যাতনই হোক না কেন।আমাদের মালিক ঠিকই আমাদের রক্ষা করবে। হয়তো একটু সবর ও ধৈর্যের পরীক্ষা আল্লাহ তাআলা নিবেন এবং হয়তো সন্ধ্যা পর্যন্ত একটু অপেক্ষা করতে হবে।

 

এবং তোদের বলছি-

 

ঐ কাফেরের বাচ্চারা শুন।

আমাদের কোনো সংখ্যার বরাই নাই,

আমাদের কোনো অস্ত্রের বরাই নাই, আমাদের কোনো শক্তির বরাই নাই।

 

আমাদের আছে ঈমানের বড়াই,

আমাদের আছে এক আল্লার নুসরতের বরাই,

যিনি ছাড়া কোনো মাবুদ নাই।

 

নিশ্চয়ই আল্লাহ মুমিনদের অভিভাবক পক্ষান্তরে কাফেরদের কোনো অভিভাবক নেই। এবং একমাত্র  আল্লাহ তাআলাই মুমিনদের সাহায্য করেন।

 

অতএব হে আমার প্রাণ প্রিয় দ্বীনদার মুমিন ভাইয়েরা ট্র|ম্পের ,যুব|ই ডেনের কোনো সাহায্য কারী  নাই,মোদীর কোনো সাহায্য কারী নাই, ত্ব|গুদ   হ|সিন|র কোনো সাহায্য কারী নাই। তাই মুমিন দের কোনো ভয় নাই।

 

কারণ মুজ|হিদের কোনো হার নাই, তারা কোনো দিন হারতে শিখেনি। আল্লাহ তাআলাই মুজ|হিদের বিজয় দান করেন।কখনো শাহাদাত দিয়ে আবার কখনো খেলাফাত বা বিজয় দিয়ে।

 

অনেক সময় দেখা যায়,

দ্বীন পালনের ক্ষেত্রে অনেক রকম বাধা বিপত্তি এবং অনেক ধরনের আপত্তিকর ঘটনা ঘটে থাকে।অনেক হেয়পতিপন্ন হতে হয় এবং অনেক মানুষের কটু কথা শুনতে হয়। জেল জুলুম ফাঁসির কাষ্টে যেতে হয়।

 

কিন্তু আমাদেরকে মনে রাখতে হবে, রসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম হক্ব দলের বৈশিষ্ট্য বর্ণনা করতে গিয়ে বলেন “তারা তিরস্কারকারীর তিরস্কার কে ভয় করবে না”

 

আমরাও দ্বীন পালনের ক্ষেত্রে কোন তিরস্কারকারীর তিরস্কারকে ভয় করিনা। অতএব (“মন্তব্য কখনো গন্তব্য ঠেকাতে পারে না!”)

ইনশাআল্লাহ,

 

নিশ্চয়ই ইসলামের বিজয় আসবেই,

নিশ্চয়ই পৃথিবীর প্রত্যেক প্রান্তে প্রান্তে কালেমার পতাকা উড়বেই,

 

নিশ্চয়ই হক্ব সব সময় সুউচ্চ অবস্থান করবেই এবং তার সুনির্দিষ্ট পথে চলবেই।

আল্লাহ তাআলার দ্বীনেকে সমুন্নত করবেই যদিও কাফেররা তা অপছন্দ করে।

 

নিশ্চয়ই এ শতাব্দী ইসলামের বিজয়ের শতাব্দি।

হে কাফের, জালেম, মুশরিকেরা__

 

আমরা আসছি, আমরা আসছি,!

 

ঐ সত্তার কসম করে বলছি যার হাতে আমার প্রাণ, ইনশাআল্লাহ মুমিন মুজাহিদের হাতেই তোদের  মৃত্যু হবে,আমরা আসছি তোদের ঘার থেকে কল্লা আলাদা করার জন্য। তোদের ঘাড় মটকে দেওয়ার জন্য।

যা মহান আল্লাহ তাআলা আমাদের উপর ফরজ করেছেন।

 


সংবাদটি শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা